ঢাকারবিবার , ৯ এপ্রিল ২০২৩
  • অন্যান্য

বিশ্বের বৃহত্তম রুবি নিলামে ,৩০ মিলিয়নেরও বেশি দাম উঠতে পারে

অনলাইন ডেস্ক
এপ্রিল ৯, ২০২৩ ৩:৩২ অপরাহ্ণ । ৬১ জন
ছবি: সংগৃহীত

নিলামে উঠতে চলেছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় রুবি। আগামী ৮ জুন নিউইয়র্কের সোথবিস ম্যাগনিফিসেন্ট জুয়েলস অকশনে প্রদর্শিত হবে এটি। রুবিটির দাম ৩০ মিলিয়নের বেশি উঠতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে। ‘এস্ট্রেলা দে ফুরা’  নামে পরিচিত রুবিটিকে নিলাম ঘর “অত্যন্ত বিরল” এবং   “সবচেয়ে মূল্যবান” হিসাবে বর্ণনা করেছে। রুবিটিকে  ২০২২ সালের জুলাই মাসে আবিষ্কার করা হয় এবং এটি ১০১-ক্যারেটের। অসামান্য স্বচ্ছতা এবং প্রাণবন্ত লাল রঙের জন্য এই রুবিকে প্রকৃতির একটি ব্যতিক্রমী ধন হিসাবে বর্ণনা করেছেন বিশেষজ্ঞরা। সোথেবির দাবি আত্মপ্রকাশের সাত মাস পরে, রুবিটি ৫৫.২২ ক্যারেটের একটি নতুন কুশন কাট নিয়ে ফিরে এসেছে, এর মধ্যে প্রকাশ পেয়েছে পাথরের পরম সৌন্দর্য। ‘এস্ট্রেলা দে ফুরা’ নিলামের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে দেবে বলে দাবি অকশন হাউসের। সোথবিস  ইনস্টাগ্রামে লিখেছে – এই  জুনে #SothebysNewYork-এ আমাদের ম্যাগনিফিসেন্ট জুয়েলস বিক্রয়ের জন্য উপস্থিত হবে। সিএনএন এর খবর অনুযায়ী – এর  আগে নজর কেড়েছিলো সানরাইস রুবি।

মিয়ানমারে পাওয়া ২৫.৫৯-ক্যারেট রুবিটি ২০১৫ সালে জেনেভা, সুইজারল্যান্ডে নিলামে তোলা হয়।  নিলামে এটির দাম উঠেছিল ৩০.৩ মিলিয়ন  । বাজারে আনার আগে, এস্ট্রেলা ডি ফুরাকে একটি ছোট প্রতিসম আকৃতিতে কেটে পালিশ করা হয়, এর মাধ্যমে রত্নটির  উজ্জ্বলতা আরো বাড়ে। সোথবিস সুইস জেমোলজিক্যাল ইনস্টিটিউটের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে পালিশ করার পর রুবিটির মধ্যে প্রাণবন্ত লাল আভা দেখা গিয়েছে।৫৫.২২-ক্যারেটের এই প্রাকৃতিক রুবি শুধুমাত্র মোজাম্বিকান রুবিদের মধ্যেই  নয়, গোটা রত্ন জগতে একটি নতুন রেকর্ড স্থাপন করেছে। সিএনএন-এর উদ্ধৃতি দিয়ে একটি বিবৃতিতে  ফুরা জেমসের প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও দেব শেঠি বলেছেন, এই ধরনের আকার এবং মানের পাথর সচরাচর দেখা যায় না। এটি এমন একটি রুবি  যার থেকে নজর ঘোরানো যাবে না ।

সূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস