ঢাকামঙ্গলবার , ২৮ মার্চ ২০২৩
  • অন্যান্য

আবারও ৬ষ্ঠ দফায় হজ নিবন্ধনের সময় বাড়ছে

অনলাইন ডেস্ক
মার্চ ২৮, ২০২৩ ১০:৪৭ পূর্বাহ্ণ । ৯১ জন
ছবি: সংগৃহীত

নির্ধারিত কোটা পূরণ না হওয়ায় ৬ষ্ঠ দফায় হজ নিবন্ধনের সময় বাড়ছে। আগামী ৩০শে মার্চ পর্যন্ত হজ নিবন্ধনের সময় বাড়ানো হয়েছে। নতুন সময়ের মধ্যে যারা নিবন্ধন করবেন তারা পরিবর্তিত প্যাকেজ অর্থাৎ ১১ হাজার ৭২৫ টাকা কমে নিবন্ধন করতে পারবেন। ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে এমন তথ্য জানা গেছে। চলতি মৌসুমে হজ প্যাকেজের খরচ মাত্রাতিরিক্ত হওয়ায় ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠে। এর মধ্যে ২২শে মার্চ হজের প্যাকেজের মূল্য ১১ হাজার ৭২৫ টাকা কমিয়ে নিবন্ধনের সময় ২৭শে মার্চ পর্যন্ত বাড়ানো হয়। এরপরও হজে যেতে ইচ্ছুকদের কাক্সিক্ষত সাড়া মিলছে না। ফলে ৬ষ্ঠ দফা সময় বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের হজযাত্রী প্রাক-নিবন্ধন সিস্টেমের হিসাব অনুযায়ী, ২০২৩ সালে হজে যেতে ইচ্ছুক দুই লাখ ৪৯ হাজার ২২৪ জন প্রাক-নিবন্ধন করেছিলেন। এদের মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রাক-নিবন্ধন করেছিলেন আট হাজার ৩৯১ জন।

আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রাক-নিবন্ধন করেছিলেন দুই লাখ ৪০ হাজার ৮৩৩ জন। সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত সরকারি-বেসরকারিভাবে নিবন্ধন করেছেন ১ লাখ ১৭ হাজার ৩৩৯ জন। সে হিসেবে এখনো ফাঁকা রয়েছে ৯ হাজার ৮৫৯ জন। এরমধ্যে সরকারি কোটায় ৫ হাজার ১০৮ জন এবং বেসরকারি কোটায় ৪ হাজার ৭৫১ জনের নিবন্ধন বাকি রয়েছে। জানা গেছে, হজের প্যাকেজের মূল্য কমানোর পরও শুরুর দিকে সাড়া মিলেনি হজ নিবন্ধনে। গত ২২শে মার্চ বাংলাদেশসহ বিশ্বের সব দেশের হাজীদের জন্য মিনায় তাঁবুর খরচ (এ, বি, সি, ডি ক্যাটাগরি) ৪১৩ সৌদি রিয়াল কমায় সৌদি সরকার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ১১ হাজার ৭২৫ টাকা। যারা ইতিমধ্যে নিবন্ধন করেছেন, তাদের খাবারের টাকার সঙ্গে এই পরিমাণ টাকা ফেরত দেয়া হবে। খরচ কমানোর ঘোষণার পর ৬ দিনে নিবন্ধন করেছেন মাত্র ২ হাজার ২১ জন। পঞ্চম দফা সময় বাড়ানোর কাক্সিক্ষত সাড়া না মেলায় বাকি প্রায় ১০ হাজার হজযাত্রী পূরণ হবে কি না তা নিয়ে শষ্কা প্রকাশ করেছে সংশ্লিষ্টরা। হজ অনুবিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন, চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে কতো জন হজযাত্রী হজ করতে যাবেন তা সৌদি সরকারকে জানানোর শেষ তারিখ আগামী ৯ই মে। সে হিসাবে এখনো হাতে আছে ১৪ দিন। এরমধ্যে নির্ধারিত কোটা পূরণ হয়ে যাবে বলে মনে করছেন তারা।