ঢাকারবিবার , ১৯ মে ২০২৪
  • অন্যান্য

মাশরুম থেকে চামড়া তৈরিতে সফলতা পেয়েছেন বিজ্ঞানী

অনলাইন ডেস্ক:
মে ১৯, ২০২৪ ১১:২২ পূর্বাহ্ণ । ১৭ জন

গ্যানোডার্মা লুসিডাম (বাঁয়ে) ও মাইসেলিয়াম (ডানে) মাশরুম থেকে তৈরি হচ্ছে চামড়াছবি বায়োটেকনোলজি ডিজাইন (২০২৪)

খাবার টেবিলে অনেক বছর ধরেই মাশরুম ভীষণ জনপ্রিয় একটি উপাদান। এই মাশরুম বা ছত্রাক থেকে নানা ধরনের ওষুধও তৈরি করা হয়। এবার মাশরুমকে চামড়া বা লেদারে পরিণত করে পোশাক তৈরিতে সাফল্য পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। ফ্যাশন ডিজাইনাররা টেকসই ফ্যাশনের জন্য চামড়ার বিকল্প খুঁজছেন অনেক বছর ধরে। নতুন ধরনের উপকরণ হিসেবে মাইসেলিয়াম বা ছত্রাকভিত্তিক বিশেষ ধরনের চামড়া তৈরিতে সাফল্য পেয়েছেন একদল গবেষক। মাইসেলিয়াম থেকে তৈরি চামড়ার মাধ্যমে পশুর চামড়ায় যেসব পোশাক তৈরি হচ্ছে, তার সবই তৈরি করা সম্ভব।

এ বিষয়ে একটা গবেষণার ফলাফল ‘রিসার্চ ডিরেকশন: বায়োটেকনোলজি ডিজাইন’ নামের একটি জার্নালে প্রকাশ করা হয়েছে। মাইসেলিয়াম উপাদানকে পেট্রোলিয়ামভিত্তিক উপকরণের মাধ্যমে কম খরচে ও পরিবেশগতভাবে চামড়ার টেকসই বিকল্প তৈরি করা হচ্ছে। সারা বিশ্বে প্রাণী হত্যার পর পশুর চামড়া দিয়ে ফ্যাশন পণ্য তৈরি নিয়ে নৈতিক দ্বিধা আছে। সেখানে চামড়ার এই বিকল্প নতুন দিগন্ত উন্মোচন করবে বলে গবেষকেরা জানিয়েছেন। গবেষকেরা দুটি ছত্রাকের প্রজাতি ব্যবহার করে চামড়ার মাদুর তৈরি করেছেন। গ্যানোডার্মা লুসিডাম ঔষধি মাশরুম, যা জৈব নকশার দুনিয়াতে বেশ ব্যবহৃত হয়। আর প্লেউরোটাস জ্যামর প্রজাতির দ্রুত বর্ধনশীল মাশরুম দিয়ে গবেষণায় সাফল্য মিলেছে। উভয় প্রজাতি দ্রুত বর্ধনশীল ও পরিবেশে ভালোই প্রাপ্যতা আছে।

যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডো বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানী এশিয়া ক্রফোর্ড বলেন, ‘বিশ্বজুড়ে টেকসই বিকল্পের সন্ধান চলছে। বায়োডিগ্রেডেবল উপাদানের বিকল্প তৈরি করতে জীবন্ত ছত্রাক ব্যবহারে আগ্রহ বাড়ছে। মাইসেলিয়াম চামড়া পরিবেশবান্ধব, পশুর চামড়ার বিকল্প হিসেবে ব্যবহারের সুযোগ আছে। আমাদের গবেষণায় ছত্রাকের একটি প্রজাতি গ্যানোডার্মা লুসিডামকে নির্দিষ্ট তাপমাত্রা, আর্দ্রতা ও নিয়ন্ত্রিত কার্বন ডাই–অক্সাইডের মাত্রার মধ্যে রেখে এই চামড়া তৈরি করা হচ্ছে। পশুর চামড়া দিয়ে ব্যাগ তৈরিতে যে মানের চামড়া প্রয়োজন হয়, ছত্রাক থেকে পাওয়া চামড়া একই মানের। এখন দেখা যাক এই চামড়া ব্যবহার করে ফ্যাশন–উদ্যোক্তারা কী চমক তৈরি করেন!