ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৮ মে ২০২৩
  • অন্যান্য

১১০০ বছরের পুরনো হিব্রু বাইবেল ৩৮ মিলিয়ন ডলারে বিক্রি

অনলাইন ডেস্ক
মে ১৮, ২০২৩ ২:৩৬ অপরাহ্ণ । ৫৮ জন
ছবি : সংগৃহীত

নিউ ইয়র্কে বিক্রি হলো ১১০০ বছর পুরনো একটি হিব্রু বাইবেল। বিশ্বের প্রাচীনতম বাইবেলের পাণ্ডুলিপিগুলির মধ্যে একটি এটি। বুধবার ৩৮ মিলিয়ন ডলারে বাইবেলটি কিনে নেন আলফ্রেড এইচ মোজেস নামের এক ব্যক্তি। তিনি এর আগে রোমানিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

আল-জাজিরার খবরে জানানো হয়েছে, হিব্রু বাইবেলের প্রায় পুরোটাই এই বইতে রয়েছে। মোজেস ‘আমেরিকান ফ্রেন্ডস অফ এএনইউ’ জাদুঘরের জন্য এই বাইবেলটি কিনেছেন। ইসরাইলের রাজধানী তেল আবিবে ইহুদিদের একটি জাদুঘর এটি। বাইবেলটি এখন ওই জাদুঘরের পথে রয়েছে। নিউ ইয়র্কের নিলাম প্রতিষ্ঠান সোথেবি এক বিবৃতিতে এ তথ্য দিয়েছে।

নিলামের আগে বিশ্বব্যাপী প্রদর্শন করানো হয় বাইবেলটি। গত মার্চ মাসে এএনইউ মিউজিয়ামে পাণ্ডুলিপিটি প্রদর্শন করা হয়েছিল। সোথেবির জুডাইকা বিশেষজ্ঞ শ্যারন লিবারম্যান মিন্টজ বলেছেন, হিব্রু বাইবেলের গভীর শক্তি, প্রভাব এবং তাৎপর্য প্রতিফলিত করে এই পুরনো পাণ্ডুলিপিটি।

এই বাইবেল মানবতার একটি অপরিহার্য স্তম্ভ। এটি নিলামে বিক্রি হওয়া পাণ্ডুলিপির ইতিহাসের সর্বোচ্চ দামগুলোর একটি।

এর আগে ২০২১ সালে মার্কিন সংবিধানের একটি বিরল অনুলিপি ৪৩ মিলিয়ন ডলারে বিক্রি হয়েছিল। লিওনার্দো দা ভিঞ্চির কোডেক্স লিসেস্টার ১৯৯৪ সালে ৩১ মিলিয়ন ডলারে বিক্রি হয়েছিল। আজকের ডলারে এর দাম প্রায় ৬০ মিলিয়ন ডলার। মিন্টজ বলেন, ‘কোডেক্স স্যাসুন’ শিগগিরই ইসরাইলে পৌঁছাবে এবং স্থায়ীভাবে সেখানেই থাকবে। পুরো বিশ্ব এই বাইবেলের প্রদর্শনীর জন্য উন্মুখ হয়ে আছে।

১৯২৯ সালে এই পাণ্ডুলিপির নাম দেয়া হয় কোডেকস স্যাসুন। এর নাম দেন ইরাকি ইহুদী ব্যবসায়ী ডেভিড সলোমন স্যাসুন। তিনি ওই বছর এই পাণ্ডুলিপি কিনে তার ঘরে রেখেছিলেন। তার লন্ডনের বাড়িটিকে তিনি ইহুদী পাণ্ডুলিপির বিশাল সংগ্রহশালায় রুপান্তরিত করেছিলেন। তবে ডেভিড সলোমনের মৃত্যুর পর তার বংশধরেরা গরীব হয়ে পড়েছিলেন। তাই ১৯৭৮ সালে তারা এই বাইবেল বিক্রি করে দেয়। সেসময় বৃটিশ রেল পেনশন তহবিল তিন লাখ ২০ হাজার ডলারে এটি কিনে নিয়েছিল। আজকের ডলারের হিসাবে সেই দাম দাঁড়ায় ১.৪ মিলিয়ন ডলার। এর ১১ বছর পর ওই বাইবেল বিক্রি করে দেয় পেনশন তহবিল। এরপর বহু হাত ঘুরে এটি আবারও ইসরাইলে ফিরে যাচ্ছে।