ঢাকাসোমবার , ১৩ মার্চ ২০২৩
  • অন্যান্য

স্বামীকে গলাকেটে হত্যার অভিযোগে স্ত্রীকে আটক করেছে পুলিশ

অনলাইন ডেস্ক
মার্চ ১৩, ২০২৩ ৮:১১ পূর্বাহ্ণ । ৭৭ জন

ঝালকাঠির রাজাপুরে পারিবারিক কলহের জেরে ঘুমের ঔষধ খাইয়ে হাত পা বেঁধে অটোচালক স্বামী আউয়াল তালুকদারকে ছুরি দিয়ে গলাকেটে হত্যার অভিযোগে স্ত্রী সাপিয়া বেগমকে আটক করেছে পুলিশ।

রোববার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে রাজাপুর উপজেলার মধ্য পুটিয়াখালি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত অটোচালক আউয়াল দুই সন্তানের জনক ও ওই গ্রামের মৃত আব্দুর রহমান তালুকদারের ছেলে। আটককৃত সাপিয়া বেগম শরিয়তপুরের নুরিয়া উপজেলার মৃত নজরুল ইসলাম মুন্সির মেয়ে।

 

ঝালকাঠির সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (রাজাপুর সার্কেল) মাসুদ রানা জানান, গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে করা ও প্রথম স্ত্রীর ৪ কাঠা জমি দ্বিতীয় স্ত্রীর নামে লিখে দেয়ার অভিযোগ তুলে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক কলহ দেখা দেয়। এসবের জেরে ঘুমের ঔষধ খাইয়ে হাত পা বেঁধে রাত দেড়টার দিকে অটোচালক স্বামী আউয়াল তালুকদারকে ছুরি দিয়ে গলাকেটে হত্যা করে ৯৯৯ নাইনে কল দিয়ে পুলিশ খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে এবং তাকে আটক করে। এ ঘটনায় নিহতের ভাই আবুল হোসেন তালুকদার বাদি সাপিয়ার নামে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

 

নিহতের ৯ম শ্রেনি পড়ুয়া ছেলে রাফিন জানান, ৩ মাস আগে আঙ্গারিয়া গ্রামের এক নারীকে বিয়ে করে তারপর বাবা। পরে কিস্তি উঠানোর কথা বলে তার মায়ের স্বাক্ষর নিয়ে ৪ শতাংশ জমি লিখে দেয়। গত সপ্তাহ খানেক আগে বিষয়টি জানতে পেরে এ নিয়ে প্রায়ই স্বামী স্ত্রীর মধ্যে মারামারি হতো। রোববার ছাগলের গাছ খাওয়া নিয়ে রাত ১০ টার দিকে সাপিয়াকে মারধর করে। পরে রাতে খাবার খেয়ে সবাই ঘুমিয়ে গেলে তার বাবাকে জবাই করে তার মা।