ঢাকাসোমবার , ২২ মে ২০২৩
  • অন্যান্য
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে দেশব্যাপী বিক্ষোভ মিছিল

অনলাইন ডেস্ক
মে ২২, ২০২৩ ১১:৩০ পূর্বাহ্ণ । ৪১ জন
সংগৃহীত ছবি

আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে দেশব্যাপী বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশের ডাক দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

সোমবার আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে দেশের সব জেলা বা মহানগর উপজেলায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ কর্মসূচি পালিত হবে।

রোববার সন্ধ্যায় আ.লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, রাজশাহী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সাইদ চাঁদ কর্তৃক জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে এ কর্মসূচি পালিত হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সংগঠনের সর্বস্তরের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের এই কর্মসূচি যথাযথভাবে পালনের জন্য সাংগঠনিক নির্দেশনা প্রদান করেছেন।

এদিকে বিএনপির নেতা চাঁদের বক্তব্যকে ‘রাজনৈতিক শিষ্টাচারবহির্ভূত ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ’ দাবি করে প্রতিবাদ জানিয়েছেন আ.লীগের নেতারা।

চাঁদকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন। তিনি বলেন, চাঁদকে অবিলম্বে আইনের মুখোমুখি করতে হবে।

চাঁদের এমন হুমকির জন্য বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ও তারেক জিয়া দায়ী। এই বক্তৃতা রাখার পর বিএনপির সন্ত্রাসীদের রাজপথে নামার কোনো অধিকার নেই।

যারা এ ধরনের বক্তব্য রেখেছেন, আ.লীগের নেতাকর্মীদের উচিত এদের ধরে এনে জনতার আদালতে বিচার করা। শুক্রবার সরকারের পদত্যাগ, গায়েবি মামলা ও গণগ্রেফতার বন্ধ, সরকারের দুর্নীতির প্রতিবাদ ও ১০ দফা দাবিতে রাজশাহীতে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে ‘কবরস্থানে’ পাঠানোর হুমকি দেন জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সাঈদ চাঁদ।

বিএনপি নেতাকে আইনমন্ত্রীর চ্যালেঞ্জ : রাজশাহী জেলা বিএনপির আহ্বায়কের বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি পালটা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেছেন, আসেন মাঠে।

দেখি কে কাকে কোথায় পাঠায়। রোববার সন্ধ্যায় সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতি অডিটোরিয়ামে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ চ্যালেঞ্জ দেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘তার ধৃষ্টতা কতটুকু। আমরা চ্যালেঞ্জ করি, আসেন মাঠে। কে, কাকে, কোথায় পাঠায় আমরা একটু দেখে নেব।’

তিনি বলেন, আপনাদের জিহ্বায় লাগাম টানুন। কথাবার্তা লাগামের মধ্যে থেকে বলুন। বিএনপির আন্দোলন প্রসঙ্গে আইনমন্ত্রী বলেন, মানুষ এখন তাদের আন্দোলনের কথা শুনলে হাসে।

অনুষ্ঠানে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, ঢাকা দক্ষিণ সিটির মেয়র ফজলে নূর তাপস, অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন, সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি মোমতাজ উদ্দিন ফকির, সম্পাদক আব্দুন নূর দুলাল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।