ঢাকাশনিবার , ১৮ মার্চ ২০২৩
  • অন্যান্য

মার্কিন গোয়েন্দা ড্রোন ভূপাতিত করা দুই যুদ্ধবিমানের পাইলটদের পুরস্কৃত করেছে রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক
মার্চ ১৮, ২০২৩ ২:৩২ অপরাহ্ণ । ৬৪ জন
ছবি : সংগৃহীত

কৃষ্ণসাগরের আকাশে মার্কিন গোয়েন্দা ড্রোন ভূপাতিত করা দুই যুদ্ধবিমানের পাইলটদের পুরস্কৃত করেছে রাশিয়া। এক বিবৃতিতে এর আগে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পুরস্কৃত করার ঘোষণা দিয়েছিল। তাতে জানানো হয়, মস্কোর নির্ধারিত আন্তর্জাতিক আকাশসীমা বিধিনিষেধ লঙ্ঘন করা থেকে একটি মার্কিন ড্রোনকে প্রতিহত করার কারণে এসব পাইলটকে রাষ্ট্রীয় পদক প্রদান করা হবে।

আল-জাজিরা জানিয়েছে, শুক্রবার ওই পাইলটদের পুরস্কার দেন রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শইগু। তিনি ওই দুই পাইলটের ভূয়সী প্রশংসা করেন। রাজনৈতিক বিশ্লেষক সের্গেই মারকভ বলেন, পাইলটদের এভাবে পুরস্কৃত করার অর্থ হচ্ছে- রাশিয়া কৃষ্ণ সাগরে মার্কিন ড্রোন ধ্বংস অব্যাহত রাখবে। রাশিয়ার জনগণ চায় তাদের সরকার পশ্চিমাদের বিষয়ে আরও কঠোর হোক। ফলে এই পুরস্কার প্রদান করে সরকার জনগণের সমর্থন জোরালো করার চেষ্টা করছে।
এদিকে ড্রোন ধ্বংসের জন্য রাশিয়াকে দায়ী করলেও পরবর্তীতে উত্তেজনা কমানোর চেষ্টা করে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটি দাবি করে, রাশিয়ার পাইলটরা হয়ত ইচ্ছা করে ড্রোনটি ধ্বংস করেনি। কিন্তু এর একদিন পরেই রাশিয়া ড্রোন ধ্বংসের জন্য তার পাইলটদের পুরস্কৃত করলো। এর মাধ্যমে রাশিয়া এই বার্তা দিতে চাইছে যে, তার আকাশসীমার আশেপাশে মার্কিন ড্রোনকে ভবিষ্যতেও টার্গেট করা হবে।

ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরুর পর কৃষ্ণসাগর এলাকায় বহিঃশক্তির আকাশযান চলাচলের ওপর বিধিনিষিধ আরোপ করেছিল মস্কো।

সেই বিধিনিষেধ এড়িয়ে নজরদারি চালানোয় মার্কিন ড্রোনে আঘাত হানে রাশিয়ার সু-২৭ যুদ্ধবিমান। এর আগে যুক্তরাষ্ট্র অভিযোগ করে বলে যে, তাদের ড্রোন আন্তর্জাতিক আকাশসীমায় অবস্থান করছিল। রাশিয়ার দুটি যুদ্ধবিমান প্রায় ৩০-৪০ মিনিট মার্কিন ড্রোনটিকে নানাভাবে হেনস্তা করে। ড্রোনের উপরে জ্বালানিও ঢেলে দেয়া হয় কয়েকবার। এরপর এর প্রোপেলারে আঘাত করে এটিকে ডুবিয়ে দেয়া হয়েছে। পেন্টাগন রাশিয়ার এই আচরণকে ‘অনিরাপদ ও অপেশাদার’ বলে অভিযোগ করেছে।