ঢাকাশনিবার , ৪ মার্চ ২০২৩
  • অন্যান্য
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বগুড়া শহীদ খোকন পার্কের বিষফোঁড়া !

হাসান শাব্বীর
মার্চ ৪, ২০২৩ ৯:১৩ পূর্বাহ্ণ । ২১৭ জন
শহীদ খোকন পার্কের  উত্তরপার্শ্বের  গেটের কাছে শহীদ মিনারের  খুব কাছেই  গেল বৎসরের ঝড়ে উপড়ে পড়া একটি গাছ  সীমানা প্রাচীরের ওপর আড়াআড়িভাবে   অবহেলায়  পড়ে রয়েছে  ।

গাছ মানুষের পরম বন্ধু , বিধাতার দান । পৃথিবীতে মানুষের জীবনরক্ষাকারী অক্সিজেন প্রদান করে গাছ । কিন্তু সেই গাছের নিচে পড়ে আবার অনেক হতাহতের ঘটনাও ঘটে ।

আন্তর্জাতিক  মাতৃভাষা দিবসে বগুড়ায় সপ্তাহব্যাপী শেষ হয়েছে একুশে বই মেলা । শহরের শহীদ  খোকন পার্ক  চত্ত্বরে অনুষ্ঠিত  হয় এবারের মেলা ।  সম্মিলিত  সাংস্কৃতিক জোট  ও জেলা প্রশাসনের আয়োজনে  সার্বিকভাবে সহযোগীতায়  ছিলো বগুড়া  জেলা  প্রশাসক । মেলায় দর্শনার্থীদের ছিলো বেশ  চোখে  পড়ার  মতো । পাঠক, প্রশাসক , লেখকদের বাৎসরিক  মিলন মেলা মূলত   বইমেলা  । বইমেলায়  পাঠক,ক্রেতার  পাশাপাশি  সাধারণ দর্শনার্থীদের সাথে শিশু, কিশোর ,বৃদ্ধ সব  বয়সী মানুষের সরব যাতায়াত ছিলো ।

শহীদ খোকন পার্কের  উত্তরপার্শ্বের  গেটের কাছে শহীদ মিনারের  খুব কাছেই  গেল বৎসরের ঝড়ে উপড়ে পড়া একটি গাছ  সীমানা প্রাচীরের ওপর আড়াআড়িভাবে   অবহেলায়  পড়ে রয়েছে  । যে কোন সময় ঘটতে  পারে দূর্ঘটনা । একুশে ফেব্রুয়ারীর  সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান -বই মেলা   ছাড়াও  সারা বছর শেহীদ  খোকন পার্কে   জাতীয় স্বাধীনতা  দিবস , বিজয় দিবস, সরকারী  নানা  গুরুত্বপূর্ণ সভা সমাবেশ , সরকারী বেসরকারী জাতীয় বিভিন্ন অনুষ্ঠানসহ  নানা আনুষ্ঠানিকতায় ছোট্ট এই পার্কটি ব্যবহৃত হয় । শহীদ খোকন শিশু পার্ক  হলেও শিশুদের চাইতে বড়রাই বেশী  ব্যবহার করে । দেখভাল  করা যাদের দায়িত্ব তারাও যেন নির্বিকার ।

সরকারী সম্পত্তিতে থেকে গাছ অপসারণ না’কি অনেক জটিল  একটি প্রক্রিয়া ।  সাধারণ মানুষ  বিশেষত এই পার্কে  যারা নিয়মিত হাটা চলা করেন তাদের অনেকেই বিষয়টি  নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন ।  গাছটি যে সীমানা প্রাচীরের ওপর উপচে পড়ে আছে সেই সীমানা প্রাচীরও বেশ পুরানো , প্রাচীর ঘেঁষা রয়েছে শহরের একমাত্র ফুল মার্কেট । ছোট-বড় মিলিয়ে  প্রায় ২০টি দোকান রয়েছে প্রত্যেকদিন হাজার মানুষের যাতায়াত সে পথে । দোকানীরাও আতংকে রয়েছেন  হঠাৎ করে  তাদের দোকানের ওপর  ভেঙ্গে  পড়লে  ব্যবসায়িক ক্ষতিসহ জানমালের ক্ষতিরও  ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে ।

সচেতন শহরবাসীর অনেকেই বলছেন শহীদ খোকন পার্কের  বিষফোঁড়া হয়ে ওঠা উপড়ে পড়া গাছটি দ্রুত অপসারণ করে নতুন চারাগাছ রোপণ সহ আরোও বৃক্ষরোপণ করা হলে পার্কের  সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি পাওয়ার সাথে   যাতায়াতকারী , দর্শনার্থীরা নিরাপদে চলাচল করতে পারবেন ।