ঢাকামঙ্গলবার , ২৫ এপ্রিল ২০২৩
  • অন্যান্য
আজকের সর্বশেষ সবখবর

প্রতি বছর ১২০০- এর বেশি শিশু এবং তরুণদের মৃত্যুর জন্য দায়ী বায়ু দূষণ

অনলাইন ডেস্ক
এপ্রিল ২৫, ২০২৩ ৪:৫০ অপরাহ্ণ । ১৪৩ জন
ছবি : সংগৃহীত

ইউরোপীয় পরিবেশ সংস্থা (EEA) প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন অনুসারে, ইউরোপে প্রতি বছর ১২০০- এর বেশি শিশু এবং তরুণদের মৃত্যুর জন্য দায়ী বায়ু দূষণ। এটি পরবর্তী জীবনে রোগের ঝুঁকি উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি করছে। সাম্প্রতিক বছরগুলিতে উন্নতি হওয়া সত্ত্বেও, অনেক ইউরোপীয় দেশে মূল বায়ু দূষণকারীর স্তর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) নির্দেশিকাগুলি অতিক্রম করেছে বলে রিপোর্টে সতর্ক করা হয়েছে। মধ্য-পূর্ব ইউরোপ এবং ইতালি বিশেষ করে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

তরুণরা বায়ু দূষণের জন্য এত ঝুঁকিপূর্ণ কেন?

শিশু এবং কিশোর-কিশোরীরা বায়ু দূষণের জন্য বিশেষভাবে ঝুঁকিপূর্ণ কারণ তাদের দেহে প্রতিরোধ ব্যবস্থা তখনও তৈরি হতে থাকে। নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড এবং ওজোনের এক্সপোজার, পাশাপাশি সূক্ষ্ম কণা পদার্থ – যা পিএম ২.৫ নামেও পরিচিত – দীর্ঘমেয়াদে শিশুদের ফুসফুসের কার্যকারিতা এবং বিকাশকে প্রভাবিত করতে পারে। স্বল্পমেয়াদে নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড এবং ওজোনের এক্সপোজার এবং সূক্ষ্ম কণা পদার্থ – যা পিএম ২.৫ নামেও পরিচিত – দীর্ঘমেয়াদে শিশুদের ফুসফুসের কার্যকারিতা এবং বিকাশকে প্রভাবিত করতে পারে। গর্ভাবস্থায় বায়ু দূষণের এক্সপোজার শিশুর কম ওজন এবং অকাল জন্মের ঝুঁকির সাথে যুক্ত। প্রতিবেদনে অনুমান করা হয়েছে যে, বায়ু দূষণের কারণে EEA এর ৩২ টি সদস্য দেশজুড়ে ১৮ বছরের কম বয়সীদের মধ্যে প্রতি বছর ১২০০’রও বেশি অকাল মৃত্যুর কারণ শিকার হচ্ছে। এই তালিকার মধ্যে যুক্তরাজ্য, সুইজারল্যান্ড বা ইউক্রেন অন্তর্ভুক্ত নয়। যদিও বায়ু দূষণের কারণে মোট মৃত্যুর তুলনায় এই সংখ্যা এখনও কম, যা ২০২১ সালে ৩ লক্ষ ১১ হাজার অনুমান করা হয়েছিল।

তবে এই দূষণের জেরে দীর্ঘস্থায়ী অসুস্থতার প্রভাব বেশি বলে মনে করা হচ্ছে। বিস্তৃত জনসংখ্যার মধ্যে, হৃদরোগ এবং স্ট্রোক বায়ু দূষণের কারণে অকাল মৃত্যুর সবচেয়ে সাধারণ কারণ, সঙ্গে আছে ফুসফুসের রোগ এবং ফুসফুসের ক্যান্সার।

ইউরোপে বায়ু দূষণ কতটা খারাপ পর্যায়ে আছে ?

২০২১ সালে, EU এর শহুরে জনসংখ্যার ৯০ শতাংশেরও বেশি বায়ু দূষণের ক্ষতিকারক মাত্রার সংস্পর্শে এসেছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। পিএম২.৫-এর এক্সপোজার – মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য সবচেয়ে ক্ষতিকারক। এই জাতীয় সূক্ষ্ম কণা পদার্থ স্ট্রোক, ক্যান্সার এবং শ্বাসযন্ত্রের রোগের একটি প্রধান কারণ। ডেটা দেখায় যে, পিএম ২.৫ স্তরগুলি মধ্য-পূর্ব ইউরোপ এবং ইতালিতে সবচেয়ে খারাপ, প্রধানত বাড়ি এবং শিল্পে কয়লার মতো জ্বালানি পোড়ানোর কারণে এর উৎপত্তি হয়। “খুব খারাপ” বায়ুর গুণমান বলে মনে করা অঞ্চলগুলির মধ্যে রয়েছে পোল্যান্ডের পিওটরকো ট্রাইবুনালস্কি এবং নউয় সাকজ, ক্রোয়েশিয়ার স্লাভনস্কি ব্রড এবং ইতালির ক্রেমোনা। পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে ওজোন এবং নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইডের মাত্রা সমস্ত দেশে WHO নির্দেশিকা অতিক্রম করেছে, যখন ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চল এবং মধ্য ইউরোপে ওজোনের সর্বোচ্চ মাত্রা দেখা গেছে। পর্তুগালের ফারো এবং সুইডেনের উমিয়া এবং উপসালাকে পিএম ২.৫ এর সর্বনিম্ন গড় মাত্রা সহ পরিষ্কার ইউরোপীয় শহর হিসাবে স্থান দেওয়া হয়েছে।

কীভাবে আমরা বায়ু দূষণ থেকে ক্ষতি কমাতে পারি?

সবুজ চুক্তির অংশ, ইইউ-এর জিরো পলিউশন অ্যাকশন প্ল্যানের লক্ষ্য হল গ্রিন গ্যাসের নির্গমন সীমিত করা এবং ব্লক জুড়ে বায়ু দূষণ কমানো। ২০৩০ সালের মধ্যে, পিএম২.৫ থেকে মৃত্যুর সংখ্যা ৫৫ শতাংশ হ্রাস করার লক্ষ্য রাখা হয়েছে। কিন্তু যতক্ষণ না এটি নিরাপদ মাত্রায় না পৌঁছায়, স্কুলের চারপাশে বাতাসের গুণমান উন্নত করা শিশুদের স্বাস্থ্যের ক্ষতি কমাতে সাহায্য করতে পারে। গাড়ির ব্যবহার কমিয়ে সাইকেল চালানোর পরিকাঠামো উন্নত করার পাশাপাশি এবং শিশুরা যখন স্কুলে যাতায়াত করে বা আউটডোর খেলাধুলা করে তখন ট্রাফিক নিষেধাজ্ঞা বাড়িয়ে ক্ষতিকারক বায়ু দূষণ থেকে শিশুদের রক্ষা করা যেতে পারে।

সূত্র : ইউরো নিউজ