ঢাকাসোমবার , ৪ মার্চ ২০২৪
  • অন্যান্য

ইভ্যালির রাসেল ও নাসরিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

অনলাইন ডেস্ক
মার্চ ৪, ২০২৪ ৪:২২ অপরাহ্ণ । ২০ জন

প্রতারণার একটি মামলায় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. রাসেল ও প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান তাঁর স্ত্রী শামীমা নাসরিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট ফারাহ দিবা ছন্দা আজ সোমবার এই আদেশ দেন। প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বাদীপক্ষের আইনজীবী সাকিবুল ইসলাম।আদালতসংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, চেক প্রতারণার অভিযোগে গত ৪ ফেব্রুয়ারি ঢাকার আদালতে রাসেল ও তাঁর স্ত্রীর বিরুদ্ধে পৃথক তিনটি মামলা করেন মাইন উদ্দিন, তানভীর আহমেদ ও তৌফিক মাহমুদ নামের তিন ব্যক্তি। আদালত তিনটি মামলা আমলে নিয়ে  দুজনকে ৪ মার্চ আদালতে হাজির হওয়ার জন্য সমন জারি করেন। তবে আজ সোমবার  আদালতে হাজির না হওয়ায় তাঁদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।ভুক্তভোগী মাইন উদ্দিনের অভিযোগ একটি মোটরসাইকেল কেনার জন্য ২০২১ সালের ২৬ মার্চ তিনি ইভ্যালিকে ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা পরিশোধ করেন। কিন্তু ইভ্যালি তাঁকে মোটরসাইকেল বুঝিয়ে দেয়নি। পরে একটি চেক দিয়েছিল ইভ্যালি। সেই চেক ব্যাংকের কাছ থেকে প্রত্যাখ্যাত হয়। ভুক্তভোগী অন্য দুজনের অভিযোগও একই রকম।

২০২১ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর প্রতারণা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে করা এক মামলায় রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বাসা থেকে রাসেল ও শামীমাকে গ্রেপ্তার করা হয়। ২০২২ সালের এপ্রিলে জামিনে মুক্তি পান শামীমা। গত ১৯ ডিসেম্বর রাসেল জামিনে মুক্তি পান।