ঢাকাশনিবার , ৬ মে ২০২৩
  • অন্যান্য

সুগার ফল বা হাইপোগ্লাইসেমিয়ার হলে দ্রুত যা করবেন

অনলাইন ডেস্ক
মে ৬, ২০২৩ ২:১৮ অপরাহ্ণ । ৭৪ জন
ছবি: সংগৃহীত

ডায়াবেটিসের রুগী নাই এমন কোন পরিবার মনে হয় আর আমাদের দেশে নাই। তাই এই রুগীদের ব্যাবস্থাপনা অবশ্যই পরিবারের সবার জানা থাকতে হবে। কারন রুগী যখন খুব অসুস্থ হয়ে পড়েন তখন তিনি নিজে আর তেমন কিছুই করতে পারেন না। ওষুধ সেবন করে রুগী তার রক্তের গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রনের মধ্যে রাখবেন এমটাই নিয়ম। তবে কখনও কখনও গ্লুকোজ স্বাভাবিক মাত্রার চেয়ে খুব বেশী বা খুব কম হয়ে যেতে পারে। আর স্বাভাবিক মাত্রার চেয়ে এই কম হয়ে যাওয়ার নামই কিন্তু হাইপোগ্লাইসেমিয়া। হঠাৎ করে যদি ডায়াবেটিসের রোগী অজ্ঞান হয়ে যায় তবে সর্বপ্রথম হাইপোগ্লাইসেমিয়ার কথা মাথায় রাখা উচিত। হাইপোগ্লাইসেমিয়া মানে রক্তে গ্লুকোজ কমে যাওয়া। ডায়াবেটিকদের রক্তে গ্লুকোজের পরিমান বেশী থাকে। হঠাৎ করে গ্লুকোজের পরিমান কমে গিয়ে বিপত্তির সৃষ্টি হয়। এ সময় যদি সঠিক চিকিৎসা না করা হয় তবে মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে, এমনকি রুগীর মৃত্যুও হতে পারে। হাইপোগ্লাইসেমিয়া হলে রক্তে গ্লুকাজের পরিমান ২.৫ মিলিমোল/লিটার এর কম হয়ে যায়।

হাইপোগ্লাইসেমিয়ার অনেক কারণ আছে। তবে সাধারণ কিছু কারণ আছে যার জন্য হাইপোগ্লাইসেমিয়া বেশী হয়। যেমনঃ
১। অতিরিক্ত শারীরিক পরিশ্রম করা।
২। কোন বেলার খাবার না খাওয়া বা খেতে ভুলে যাওয়া।
৩। ইন্সুলিনের ডোজ বেশী নেয়া।
৪। মুখে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনের ওষুধ বেশী খাওয়া।
৫। এলকোহল সেবন
৬। লিভার ও কিডনীতে সমস্যা থাকলে।