ঢাকাশনিবার , ১১ নভেম্বর ২০২৩
  • অন্যান্য

শ্রমিক আন্দোলনে গ্রেফতার ৮৮

অনলাইন ডেস্ক
নভেম্বর ১১, ২০২৩ ৯:১৪ অপরাহ্ণ । ৪২ জন

শিল্পপুলিশের ডিআইজি মো. জাকির হোসেন খান বলেছেন, গার্মেন্টস সেক্টরে শ্রমিকের মজুরি বাড়ানো কেন্দ্র করে গাজীপুরে শ্রমিক অসন্তোষ চলছে। আমাদের কাছে তথ্য আছে ১২৩ কারখানায় কমবেশি ধ্বংসাত্মক কার্যক্রম চালিয়েছে। এ সংক্রান্তে বিভিন্ন থানায় ২২ মামলায় আজ পর্যন্ত ৮৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শনিবার দুপুর ১২টায় গাজীপুরের কোনাবাড়িতে শ্রমিকদের আন্দোলনে ক্ষতিগ্রস্ত কারখানা তুসুকা গার্মেন্টস পরিদর্শনে এসে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

ডিআইজি জাকির হোসেন বলেন, গার্মেন্টস সেক্টরে শ্রমিকের মজুরি বাড়ানো কেন্দ্র করে এখানে শ্রমিক অসন্তোষ চলছে। আমাদের কাছে তথ্য আছে ১২৩ কারখানায় কমবেশি ধ্বংসাত্মক কার্যক্রম চালিয়েছে।

শ্রমিকদের আন্দোলন কোনাবাড়িতে বেশি। আশুলিয়াতে কিছুটা আছে বা চট্টগ্রাম এলাকায় আন্দোলন নেই। কোনাবাড়িতে একটা গ্রুপ এখানে মদদ দিচ্ছে। ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ ও ইন্টিলিজেন্টস সেল আছে তারাও কাজ করছে।

তিনি বলেন, শিল্পপুলিশ, গাজীপুর মেট্টোপলিটন পুলিশ, র্যাব, জেলা পুলিশসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সবাই আমরা এ পর্যন্ত ৮৮ জনকে গ্রেফতার করেছি এবং বিভিন্ন থানায় ২২ মামলা হয়েছে।

আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে। সরকার ইতোমধ্যে মজুরি ঘোষণা করেছেন এবং আমাদের ধারণা, এর পেছনে একটা গ্রুপ এদের উসকানি দিচ্ছে আন্দোলন করার জন্য। এখানে যারা কাজ উসকানি দিচ্ছে, তাদের চিহ্নিত করার কাজ চলছে।