ঢাকারবিবার , ৬ আগস্ট ২০২৩
  • অন্যান্য

`যে দলে সাকিব আছে, সে দলে তাকেই নেতৃত্ব দেওয়া সঠিক’

স্পোর্টস ডেস্ক
আগস্ট ৬, ২০২৩ ৩:৫৩ অপরাহ্ণ । ১০০ জন

তামিম ইকবাল বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের নেতৃত্ব ছাড়ার পর থেকেই জল্পনা-কল্পনা চলছে পরবর্তী অধিনায়ক কে হবেন তা নিয়ে।

অন্যদিকে টিম ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করা খালেদ মাহমুদ সুজন মনে করেন, যে দলে সাকিব আছে সে দলে সাকিবকেই অধিনায়ক রাখা উচিত।

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে ওয়ানডে অধিনায়কের পদ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দেন তামিম।

সেই সময় নতুন অধিনায়ক বেছে নেওয়ার প্রসঙ্গে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘যদি তামিম শুধু বলত যে এশিয়া কাপ খেলছে না, তা হলে তো আমাদের প্রস্তুত ছিলই, সহ-অধিনায়ক লিটন হতো অধিনায়ক। এখন এ মুহূর্তে আমি বলতে পারছি না। দুয়েকজনের সঙ্গে কথা না বলে (নতুন অধিনায়ক কে) বলা যাচ্ছে না।

শনিবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে কথা হয় সুজনের সঙ্গে। তার কাছে জানতে চাওয়া হয়, পরবর্তী অধিনায়ক কাকে করা উচিত, প্রশ্নোত্তরে সুজন অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার সাকিবকে এগিয়ে রাখার কথা বলেন তিনি। লিটনকেও অপছন্দ নয় তার, ‘আমি কীভাবে বলি যে, লিটনকে (আমার অধিনায়ক হিসেবে পছন্দ) নয়। লিটন সিরিজ জিতিয়েছে, ভারতের বিপক্ষে। তবে যাই হোক, সাকিব তো অবশ্যই এগিয়ে থাকবে এখানে। সাকিবের মাথা (বুদ্ধি), অধিনায়কত্বের অভিজ্ঞতা অনেক বেশি। তবু লিটনকেও ছোট করতে চাই না। লিটন অতীতে (অধিনায়ক হিসেবে) খুবই ভালো কাজ করেছে।’

‘তবে আমি মনে করি, যে দলে সাকিব আছে, সে দলে এখন সাকিবকে (নেতৃত্ব) দেওয়াটাই ঠিক। আমার ব্যক্তিগত মত এটি। আর লিটন, (নাজমুল হোসেন) শান্ত, (মেহেদী হাসান) মিরাজ এরাও তৈরি হবে। সামনে এদেরকেই অধিনায়কত্ব করতে হবে। এদের হাতেই আর্মব্যান্ড যাবে। তামিম, মুশফিকরা (মুশফিকুর রহিম) অবসর নিলে এরাই সিনিয়র (ক্রিকেটার) হবে।’

লিটনকে যদি বোর্ড অধিনায়ক করে, সে ক্ষেত্রে সাকিবের দিক থেকে কোনো আপত্তি উঠবে না বলে মনে করেন সাবেক এই ক্রিকেটার, ‘অবশ্য লিটনকে (অধিনায়কত্ব) দিলেও যে, এটা সাকিবের জন্য ইস্যু হবে, তা নয়। আমি সাকিবকে ব্যক্তিগতভাবে চিনি। আমার মনে হয় না সাকিব এসব নিয়ে কিছু মনে করবে। সে উলটো লিটনকে আরও বেশি সাহায্য করবে। এখন বোর্ড যদি মনে করে লিটন (অধিনায়ক হবে), এটাও কোনো সমস্যা নয়।’

গত বছর অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপ থেকে একসঙ্গে বাংলাদেশ টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক হিসেবে আছেন সাকিব। এবার ওয়ানডের নেতৃত্বও পেলে ২০১১ সালের পর প্রথমবারের মতো তিন সংস্করণেই অধিনায়কত্ব করবেন তিনি।