ঢাকামঙ্গলবার , ৩১ অক্টোবর ২০২৩
  • অন্যান্য

বগুড়ায় আ.লীগ নেতার ওপর হামলায়, বিএনপির ৮৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

অনলাইন ডেস্ক
অক্টোবর ৩১, ২০২৩ ৬:০৮ অপরাহ্ণ । ৫৪ জন

বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আল রাজি জুয়েলের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে। আহত নেতা সোমবার রাতে সদর থানায় জেলা বিএনপির সভাপতি রেজাউল করিম বাদশ ও সাধারণ সম্পাদক আলী আজগর তালুকদার হেনাসহ ৮৪ জনের নামে মামলা করেছেন।

মঙ্গলবার দুপুরে সদর থানার ওসি সাইহান ওলিউল্লাহ মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কাউকে গ্রেফতার করতে পারেননি। তবে আসামিরা প্রকাশ্যে মহাসড়ক অবরোধ করলেও পুলিশ তাদের গ্রেফতার না করায় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভ ও হতাশার সৃষ্টি হয়েছে।

পুলিশ ও মামলা সূত্র জানায়, গত ২৯ অক্টোবর বিএনপির হরতাল চলাকালে শহরের গালাপট্টি এলাকায় বিএনপি ও আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের মাঝে তিন দফা ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নাশকতা করা হয়। ইটপাটকেলের আঘাতে জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আল রাজি জুয়েলসহ ৭/৮ নেতাকর্মী আহত হন। জুয়েলের মাথায় ৮টি সেলাই দিতে হয়েছে। এছাড়া অন্য স্থানে তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগ নেতা জুয়েল সোমবার রাতে সদর থানায় জেলা বিএনপির সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা ও সাধারণ সম্পাদক আলী আজগর তালুকদার হেনাসহ ৮৪ জনের নামে মামলা করেছেন।

অপরদিকে ২৯ অক্টোবর হরতাল চলাকালে শহরতলির বাঘোপাড়া এলাকায় মাইকে ঘোষণা দিয়ে পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় পৃথক তিনটি মামলা হয়েছে। রোববার মধ্যরাতে পুলিশ ও আনসার সদস্যের দায়ের করা মামলায় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের ৪৩ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। এজাহারে অজ্ঞাত অনেককে আসামি করা হয়। ওই মামলার সময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। এসব হামলায় তিন পুলিশ ও মাহী নামে এক কিশোর আহত হন। মাহীর চোখে গুলি লেগেছে। তার চোখে অপারেশন করতে হবে।