ঢাকাবুধবার , ৩ মে ২০২৩
  • অন্যান্য

গরমের সময় চুলের যত্নে তেল দেওয়ার নিয়ম

admin
মে ৩, ২০২৩ ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ । ৮২ জন

গরমের সময় চুলে ময়লা বেশি হয়। বাইরের ধুলাবালি, রোদ, ঘাম, বৃষ্টি থেকে এ সময় চুলের সুরক্ষায় নিয়মিত যত্ন নেওয়া দরকার। যত্নের অভাব হলে চুলে বিরূপ প্রভাব পড়ে। শুষ্ক, তৈলাক্ত ও স্বাভাবিক সাধারণত এই তিন ধরনের হয় চুল। তবে চুল যেমনই হোক, এ সময় সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার চুলে তেল ম্যাসাজ করতে হবে। তা না হলে মাথায় খুশকি বেড়ে যাওয়া, চুল পড়াসহ নানা রকম সমস্যা দেখা দিতে পারে।তেল তো দেবেন কিন্তু কখন চুলে তেল দেওয়া ভালো এই প্রশ্ন অনেকের। চুলে তেল দেওয়ার জন্য ধরাবাঁধা কোনো সময় নেই। সুবিধামতো যেকোনো সময় চুলে তেল দেওয়া যাবে। তবে গোসলের আগে চুলে তেল দেওয়া সবচেয়ে বেশি প্রচলিত এবং উপকারী। গোসলের সময় চুলে শ্যাম্পু করে ফেললেই চুল পরিষ্কার হয়ে যায়। অনেকেই মনে করে মাথায় শুধু তেল দিলেই হবে। আদতে তা নয়। চুলে তেল মেখে হাতের আঙুলের সাহায্যে সময় নিয়ে ধীরে ধীরে ম্যাসাজ করতে হবে। এতে চুলের গোড়ায় রক্তসঞ্চালন বৃদ্ধি পায়। চুল ভেতর থেকে পুষ্টি পায়। এছাড়া মোটা দাঁতের চিরুনি ব্যবহার করতে পারেন। চুলে তেল দেওয়ার পর অন্তত আধা ঘণ্টা অপেক্ষা করা ভালো। এতে চুলে তেলের কার্যকারিতা বৃদ্ধি পায়। তেল হালকা গরম করে নিতে পারেন। এতে চুল ও মাথার ত্বকে থাকা ময়লা সহজে উঠে আসে। তেল ম্যাসাজ করার পর তোয়ালে দিয়ে চুল পেঁচিয়ে রাখতে পারেন। এতে চুলের ময়লা সহজে পরিষ্কার হয়। লোমকূপের মুখগুলো খুলে ভেতরের ময়লা বের হয়ে আসে। চুলের গোড়ায় তেলের পুষ্টিগুণ পৌঁছে যায়।

যাঁদের চুল শুষ্ক তাঁরা গরমকালে খুব সমস্যায় ভোগেন। শুষ্ক চুলে প্রাণ ফেরাতে নিয়মিত তেল ব্যবহার করতে পারেন। উসকো খুসকো চুল নরম ও ময়েশ্চার করতে তেল সবচেয়ে ভালো কাজ করে।গরমে চুলে খুশকির প্রাদুর্ভাব বাড়ে। নিয়মিত চুলে তেল লাগালে মাথায় খুশকি হওয়ার প্রবণতাও কমে। তেল একটু কুসুম গরম করে নিন। গরম তেলে ময়লা কাটে বেশি। খুশকি সহজে দূর হয়।

নিয়মিত তেলের ব্যবহারে মাথায় চুল বৃদ্ধি পায়। চুলের ঘনত্ব বাড়ে।

বাজারে নানা উপাদান থেকে তৈরি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের তেল পাওয়া যায়। তবে গরমের এই সময়ে চুলে কদুর তেলে উপকার পাবেন। গোসলের আগে মাথায় কদুর তেল লাগিয়ে আধাঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন। চুল কখনো রুক্ষ হবে না। চুলের জৌলস বাড়বে। চকচকে ভাব আসবে। এক দিন চুলে কদুর তেল লাগাতে পারেন। না পারলে সপ্তাহে অন্তত এক দিন এটি চুলে দিয়ে দেখতে পারেন। কদুর তেল মাথা ঠাণ্ডা রাখতে সহায়তা করে। মাথা ব্যথা উপশম করে। ঘুম কম হলে নিয়মিত ব্যবহারে অনিদ্রা দূর হবে। ক্লান্তিবোধ থেকেও আপনাকে দূরে রাখতে সাহায্য করে। চুল বড় ও উজ্জ্বল করে।