ঢাকামঙ্গলবার , ১৪ মার্চ ২০২৩
  • অন্যান্য

আসন্ন পবিত্র রমজান উপলক্ষে ইফতারের আয়োজন করার ঘোষণা দিয়েছে চেলসি

অনলাইন ডেস্ক
মার্চ ১৪, ২০২৩ ৪:২২ অপরাহ্ণ । ৭৮ জন
ছবি: সংগৃহীত

রমজান মাসে বলদে যায় বিভিন্ন ক্রীড়ার সময়সূচি ও পরিবেশ। সকল বিদ্বেষের বিরুদ্ধে সম্প্রীতি, একতার দৃষ্টান্ত স্থাপনের দিক দিয়ে অনন্য এক নজির গড়তে যাচ্ছে ইংলিশ জায়ান্ট চেলসি। আসন্ন পবিত্র রমজান উপলক্ষে নিজেদের স্টেডিয়াম স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে ম্যাচের পিচের পাশেই মুসলিমদের জন্য ইফতারের আয়োজন করার ঘোষণা দিয়েছে লন্ডনের ক্লাবটি। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের কোনো ক্লাবের ইতিহাসে যা এক বিরল ঘটনা। এই উদ্যোগে তারা দাতব্য প্রতিষ্ঠান রামাদান টেন্ট প্রজেক্টকেও পাশে পেয়েছে। চেলসির অফিসিয়াল ক্লাব ওয়েবসাইট থেকে এক বিবৃতিতে এই তথ্য প্রকাশ করা হয়।

মুসলমানদের কাছে রমজান মাসে সবচেয়ে বড় অনুষঙ্গের নামই ইফতার। চেলসি ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, আগামী ২৬ মার্চ ক্লাবটির স্টাফ, স্কুল ছাত্র, স্থানীয় মসজিদের সদস্য ও ক্লাবের মুসলিম সমর্থকদের স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের ইফতারে উপস্থিত থাকার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হবে। উন্মুক্ত এই ইফতার আয়োজনে পুরস্কারপ্রাপ্ত দাতব্য সংস্থা রামাদান টেন্ট প্রজেক্টও থাকছে চেলসির সাথে। ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠিত এই সংস্থাটি আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতি বজায় রাখার সাথে রমজানের মহিমা প্রচার করে আসছে।

রামাদান টেন্ট প্রজেক্টের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী ওমর সালহা বলেন, আমাদের সংস্থার ১০ বছর পূর্তি উপলক্ষে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে উন্মুক্ত ইফতার আয়োজন এবং চেলসি ফুটবল ক্লাবের সাথে অংশীদারিত্বে কাজ করতে পেরে আমরা সম্মানিত বোধ করছি। কারণ, ফুটবলে অন্তর্ভুক্তিমূলক ধারণা নিয়ে কাজ করছে চেলসি। আর সেটাও এতটাই বড় পরিসরে যে, লন্ডনের গর্ব এই ক্লাব হতে যাচ্ছে প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে প্রথম, যারা নিজেদের স্টেডিয়ামে আয়োজন করতে যাচ্ছে একটি একটি উন্মুক্ত ইফতার।

চেলসি ফাউন্ডেশনের প্রধান সাইমন টেইলর বলেন, রামাদান টেন্ট প্রজেক্টের পাশাপাশি উন্মুক্ত ইফতার আয়োজনের ঘোষণা দিতে পেরে আমরা আনন্দিত। সেই সাথে, প্রথম প্রিমিয়ার লিগ ক্লাব হিসেবে এমন কিছু আয়োজন করতে পেরেও আমরা অত্যন্ত গর্বিত। ধর্মীয় সহনশীলতা প্রচারে রমজান এবং মুসলিম সম্প্রদায়কে স্বীকৃতি দেয়া আমাদের কাজের একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক এবং, আগামী ২৬ মার্চ সবাইকে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে স্বাগত জানাতে উন্মুখ হয়ে আছি।