ঢাকামঙ্গলবার , ৩১ অক্টোবর ২০২৩
  • অন্যান্য

অবরোধের কারনে মাইকিং করেও বাস যাত্রী পাওয়া যায়নি

অনলাইন ডেস্ক
অক্টোবর ৩১, ২০২৩ ৬:৩৭ অপরাহ্ণ । ৬৭ জন

নাটোরে বিএনপির ডাকা তিন দিনের অবরোধ কর্মসূচির প্রথম দিন তিন চাকার যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক থাকলেও বাস-ট্রাক চলাচল সীমিত ছিল। যাত্রীসংকটে বাস চলাচল স্বাভাবিক হয়নি বলে জানিয়েছেন পরিবহন ব্যবসায়ীরা। যাত্রী বাড়াতে বাসস্ট্যান্ডে মাইকিং করা হলেও সংকট কমেনি।

আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত নাটোর শহরের দুটি বাস টার্মিনাল ও চারটি মহাসড়ক এলাকা ঘুরে দেখা যায়, বাধাহীনভাবে তিন চাকার যানবাহন (অটোরিকশা, সিএনজিচালিত হিউম্যান হলার ও রিকশা ভ্যান) চলাচল করলেও বাস-ট্রাক তেমন একটা চলতে দেখা যায়নি। সকাল থেকে পরিবহন ব্যবসায়ীরা আন্তজেলা ও দূরপাল্লার বাস ছাড়ার উদ্যোগ নিয়েছিলেন।

এমনকি হরিশপুর বাস টার্মিনালে গাছের সঙ্গে মাইক বেঁধে যাত্রী আহ্বান করা হলেও যাত্রী তেমন একটা পাওয়া যায়নি। পরিবহন ব্যবসায়ীরা সকালের দিকে তিনটি বাস ছাড়লেও অন্যগুলোর যাত্রা স্থগিত করেন। আন্তজেলা বাসগুলো দীর্ঘ সময় ধরে বাস টার্মিনাল ও সড়কের মোড়ে মোড়ে দাঁড়িয়ে থাকলেও তেমন একটা যাত্রী পায়নি। অল্প কিছু যাত্রী নিয়ে সকালে কিছু বাস ছাড়লেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

হরিশপুর বাস টার্মিনালের চেইন মাস্টার হারুন উর রশিদ বলেন, ‘অন্য দিনের মতো বাস টার্মিনালে যাত্রীদের আনাগোনা ছিল না। বাস চলবে না মনে করে অনেকে টার্মিনালে আসেননি। এ জন্য আমরা মাইকিংয়ের ব্যবস্থা করেছিলাম। কিন্তু তাতেও লাভ হয়নি। সকালে শুধু ঢাকার তিনটি বাস ছেড়ে গেছে। এর একটি গাজীপুর এলাকায় অবরোধকারীদের আক্রমণে পড়েছে বলে শুনেছি। পরে যাত্রী না হওয়ায় বাস ছাড়েনি। একই অবস্থা আন্তজেলা বাসগুলোরও।

নাটোর বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান বলেন, তাঁরা হরতাল-অবরোধ প্রত্যাখ্যান করেছেন। বাস চলাচল স্বাভাবিক রাখতে চেষ্টা করছেন। তবে যাত্রীস্বল্পতার কারণে সব বাস ছাড়া সম্ভব হয়নি।

এদিকে অবরোধ কর্মসূচি শুরু হওয়ার আগের রাতে পুলিশ নাটোর সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আলম (৫০), যুবদল নেতা আনিসুর রহমান (৩৮), লালপুর উপজেলার দুড়দুড়িয়া ইউনিয়ন ছাত্রশিবিরের সভাপতি জয়নাল আবেদীন ও নলডাঙ্গা পৌর জামায়াতের সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশিদকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠিয়েছে।